যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান যুদ্ধে জড়িয়ে পড়লে মার্কিন মিত্র দেশ ইসরায়েল ছাড় পাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন  তেহরানের মদদপুষ্ট হিজবুল্লাহ প্রধান হাসান নাসরাল্লাহ।

গতকাল শুক্রবার হিজবুল্লাহর আল-মানার টেলিভিশনে সম্প্রচার করা এক সাক্ষাৎকারে হাসান নাসরাল্লাহ এ হুঁশিয়ারি দেন। বার্তা সংস্থা এএফপি ও বাসস এ খবর জানিয়েছে।

এ সময় নাসরাল্লাহ বলেন, ‘এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে ইরান সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে ইসরায়েলে হামলা চালাতে সক্ষম।’

যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা ও ইসলামী প্রজাতন্ত্রকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত বক্তব্যের পর হিজবুল্লাহ নেতা এমন মন্তব্য করলেন।

হিজবুল্লাহ প্রধান আরো বলেন, ‘যখন আমেরিকানরা বুঝবে, এই যুদ্ধ ইসরায়েলকে উপড়ে ফেলতে পারে, তখন তারা পুনর্বিবেচনা করবে।’

হিজবুল্লাহ নেতা আরো বলেন, ‘ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ প্রতিরোধে সম্মিলিতভাবে কাজ করাই আমাদের দায়িত্ব।’

সংঘাত শুরু হলে সৌদি আরব অথবা সংযুক্ত আরব আমিরাত— কোনো দেশই লাভবান হবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

শুক্রবার মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে ইরান হামলার ব্যাপারে ট্রাম্পের ক্ষমতার গণ্ডি বেঁধে দিতে ভোটাভুটি হয়। এ সময় আশঙ্কা করা হয়, ট্রাম্পের কঠোর নীতি অপ্রয়োজনীয় একটি যুদ্ধের দিকে যুক্তরাষ্ট্রকে ঠেলে দিচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র হিজবুল্লাহকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। কিন্তু হিজবুল্লাহ ভূমধ্যসাগরীয় ছোট দেশ লেবাননের প্রধান রাজনৈতিক দলের একটি এবং গত বছর পার্লামেন্ট নির্বাচনে তারা ১৩টি আসন পায়। লেবাননের মন্ত্রিপরিষদে হিজবুল্লাহর তিনজন মন্ত্রী রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here