শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করায় এবার শান্তিতে নোবেল পুরস্কারবিজয়ী ড. মুহম্মদ ইউনূসসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করেছেন গ্রামীণ টেলিকমের কর্মী এমরানুল হক।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা তৃতীয় শ্রম আদালতের সেরেস্তা সহকারী মো. জামাল উদ্দিন এনটিভি অনলাইনকে বলেন, গত ৩ জুলাই ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে গ্রামীণ টেলিকমের কর্মী এমরানুল হক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় তিনি ড. মুহম্মদ ইউনূস, নাজমিন সুলতানা ও খন্দকার আবু আবেদিনকে আসামী করে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন। আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম জবানবন্দি শেষে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে সমন জারির নির্দেশ দেন। আজ বিবাদীদের ঠিকানায় সমন পাঠানো হয়েছে।

এর আগেও ড. মুহম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে একই আদালতে পাওনা পরিশোধ না করার অভিযোগে মামলা করেছেন গ্রামীণ টেলিকমের একাধিক কর্মী।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, গ্রামীণ টেলিকম ২০০৬ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার ১৫৮ কোটি টাকা মুনাফা করেছে। শ্রম আইনের বিধান অনুযায়ী নিট মুনাফার ৫ শতাংশ কোম্পানির কর্মীদের দিতে হবে। এই হিসাবে কর্মীদের নিট মুনাফার ১০৭ কোটি ৯৩ লাখ টাকা পাওনা হয়। এর মধ্যে ৮০ শতাংশ কর্মীদের, ১০ শতাংশ সরকারকে এবং অন্য ১০ শতাংশ কল্যাণ তহবিলে জমা দিতে হবে। কিন্তু গ্রামীণ টেলিকম কর্মীদের প্রাপ্য পরিশোধ করেনি এবং সরকারকেও টাকা দেয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here