তবুও জিততে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ

0



বাতাসের শহর হিসেবে খ্যাতি আছে ওয়েলিংটনের। সেই শহরেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় টেস্ট ভেন্যু বেসিন রিজার্ভ স্টেডিয়াম।  সাগরের কাছে হওয়াতে বাতাসের গতিটা এখানে একটু বেশিই। তার ওপর বেসিন রিজার্ভ পার্কের সবুজ চত্বরে আছে বিশ্বের অন্যতম বাউন্সি উইকেট। এখানে বাংলাদেশের জন্য অপেক্ষা করছে বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ। তবে কিউই পেসারদের সুইং-বাউন্সের চোখ রাঙানো উপেক্ষা করে এমন কঠিন কন্ডিশনেও জয়ে ফিরতে আত্মবিশ্বাসী ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সফরকারীদের পরিসংখ্যান মোটেও স্বস্তিকর নয় বাংলাদেশের। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ৮টি টেস্টে চারটিতেই হার ইনিংস ব্যবধানে। তবে ২০১৭ সালে ওয়েলিংটনে লড়াই করেছিল বাংলাদেশ। মুশফিক-সাকিবের রেকর্ড ৩৫৯ রানের জুটিতে প্রথম ইনিংসে ৫৯৫ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে সফরকারীরা। দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং ব্যর্থতায় ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে হারতে হয় তাদের। ২০১৭ এর মতো এবারো প্রথম ইনিংসে নিয়ন্ত্রণ নিতে পারলেই ওয়েলিংটন টেস্টে ভালো কিছু করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ‘জেতাটা আসলেই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা জেতার জন্যই খেলবো আর আমি মনে করি এই স্পৃহাটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট জেতার সামর্থ্য আছে বাংলাদেশের।’

একই সঙ্গে মাহমুদউল্লাহ সবশেষ সফরের অভিজ্ঞতা থেকেও প্রেরণা নিচ্ছেন, ‘গতবারও কিন্তু উইকেট এমন সবুজাভ ছিল। প্রথম দিনটা একটু কঠিন হতে পারে। তবে দিন গড়িয়ে চলার সঙ্গে এটা ব্যাটিং সহায়ক হয়ে উঠবে বলেই মনে করি।’

প্রথম টেস্টের আগে সতীর্থদের আগ্রাসী ক্রিকেট খেলার আহ্বান জানিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। ওয়েলিংটনে দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগেও একই কৌশল অনুসরণের পক্ষে তিনি। তার মতে এই ধারা অব্যাহত রাখতে পারলেই কেবল জয় সম্ভব, ‘আমি আগের টেস্টেও বলেছিলাম আমরা আগ্রাসী ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলব। আমরা এখানে খেলার জন্যই শুধু খেলতে আসিনি, জিততেও এসেছি। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডে টেস্ট জিততে পারে। যদিও চ্যালেঞ্জটা কঠিন হবে, কিন্তু বিশ্বাস করি যে আমরা জিততে পারি।’

প্রথম টেস্টের মতো দ্বিতীয় টেস্টেও মুশফিকের খেলা হচ্ছে না। মুশফিকের সঙ্গে নতুন করে তামিমকে নিয়েও সংশয় দেখা গেছে। যদিও মাহমুদউল্লাহ আশাবাদী তার খেলা নিয়ে, ‘তামিমের ব্যাপারে আমি আশাবাদী। আজ ও ব্যাটিং করেছে। আর মুশফিককে হয়তো  আমরা পাচ্ছি না। তৃতীয় ম্যাচে মুশফিককে পাওয়ার আশা করছি।’



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here