বঙ্গবন্ধুর ছবির মর্যাদা রক্ষা করতে হবে

0


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি যত্রতত্র যেনতেনভাবে ব্যবহার করতে দেখা যায়। এই মহান নেতার ছবি অনেকে নিজেদের ক্ষুদ্র স্বার্থ হাসিলের জন্য ব্যানার-পোষ্টার, লিফলেটে ব্যবহার করছে।

অনেক ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর ছবিকে অমর্যাদা করা হচ্ছে। জাতির পিতার ছবিকে অমর্যাদা করা জাতির পিতাকে অমর্যাদা করারই শামিল। অনেক দায়িত্বশীল ব্যক্তি বা সংগঠন তাদের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড ছাড়াও জাতীয় অনুষ্ঠানাদি ও অন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজে বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করে থাকেন, যা যত্নসহকারে রক্ষণাবেক্ষণ করার ফলে জাতির পিতার সম্মান সমুন্নত থাকে।

কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় বঙ্গবন্ধুর ছবি হেলাফেলায় ব্যবহার করা হচ্ছে, যা মোটেই কাম্য নয়। এমনও দেখা যায়, কোনো নির্বাচনী প্রচারণার কাজে লিফলেটে বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করা হয়েছে এবং সেই ছবি মাটিতে পড়ে আছে। কখনও তা পথচারীদের অবচেতনে পদদলিত হয়, যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও গর্হিত কাজ বলে মনে করি।

বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি কিংবা ছবিতে ফুল বা ফুলের তোড়া দিয়ে শ্রদ্ধাচিত্তে সম্মান জানাই আমরা। এর বিপরীতে কারও কারও অবহেলা বা অসচেতনতার কারণে বঙ্গবন্ধুর ছবি ধুলায় লুটিয়ে পদদলিত হবে এমনটা সহজে মেনে নেয়া যায় না।

বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করতে হলে প্রথমে বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান দিতে হবে, তারপর তার ছবি ব্যবহার করতে হবে। সস্তা কাগজের অস্পষ্ট ছাপা লিফলেটে বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করে তার অমর্যাদা করা হচ্ছে এমন দৃশ্য অগণিত বঙ্গবন্ধুপ্রেমিকের বা অনুরাগীর হৃদয় ভেঙে দেয়। এ কষ্ট দেয়ার অধিকার কারও নেই।

এটি অপরাধ বলে মনে করা যেতে পারে। যারা আইন দিয়ে ন্যায়-অন্যায় বিচার করে থাকেন, এমন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর নির্বাচনী কাজেও বঙ্গবন্ধুর ছবির অমর্যাদা হতে দেখা গেছে। এটা মেনে নেয়া যায় না।

সম্প্রতি একটি পেশাজীবী সমিতির বার্ষিক নির্বাচনী প্রচারণার কাজে বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ব্যবহার করে লিফলেট তৈরি করে নির্বাচনী প্রচার অভিযান চালিয়েছেন অনেকেই। এমন অনেক লিফলেট মাটিতে পদদলিত হতে দেখে কষ্ট পেয়েছি।

বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করে নির্বাচনী প্রচারণার কাজ চালানো হয় ভালো কথা; কিন্তু এসব ক্ষেত্রে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দেয়াটা ভালো নয়। আশা করি সামনের দিনগুলোতে যারা তাদের নির্বাচনী প্রচারণার কাজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করবেন, তারা দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবির মর্যাদা রক্ষা করবেন।

জাহাঙ্গীর কবির : কবি ও প্রবন্ধকার; সখিপুর, শরিয়তপুর



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here