ভিএআর নিয়ে নেইমারের ক্ষোভ

0


ম্যাচের শেষ মুহূর্তে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির ব্যবহারে পেনাল্টি পায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তা থেকে গোল হজম করে চ্যাম্পিয়নস লিগ শেষ ষোলোতে বিদায় নিয়েছে প্যারিস সেন্ত জার্মেই। বিতর্কিত পেনাল্টি দেওয়ায় ম্যাচ শেষে তাই ভিএআরকে একহাত নিলেন নেইমার।

২-০ গোলে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে জিতে এসেছিল পিএসজি। নেইমার-এদিনসন কাভানিকে ছাড়াই পাওয়া ওই জয়ে দ্বিতীয় লেগেও উজ্জীবিত ছিল তারা। কিন্তু ম্যানইউ ম্যাচটি জিতে নেয় ৩-১ গোলে। দুই লেগে ৩-৩ গোলে সমান থাকায় অ্যাওয়ে গোলের কল্যাণে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ইংলিশ ক্লাব।

চোটে এই ম্যাচেও ছিলেন না নেইমার। দলকে উদ্ধার করতে না পারার আক্ষেপের সঙ্গে এবার যুক্ত হলো বিদায়ের হতাশা। পার্ক দে প্রিন্সেসের গ্যালারিতে বসে দেখেছেন তিনি খেলা। ইনজুরি সময়ের চতুর্থ মিনিটে পিএসজির ডিবক্সে প্রেসনেল কিমপেম্বের হ্যান্ডবল হলে পেনাল্টি থেকে গোল করেন মার্কাস র‌্যাশফোর্ড।

এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভিএআরের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ নেইমার। ইনস্টাগ্রামে তিনি এই প্রযুক্তি নিয়ে লিখেছেন, ‘এটা লজ্জার একটা কারণ। ফুটবল সম্পর্কে কিছুই জানে না এমন চার লোক টেলিভিশনে স্লো মোশন রিপ্লেতে চোখ রাখলো। এটা ছিল না (হ্যান্ডবল)। পিঠ যখন ঘুরলো তখন তার (কিমপেম্বে) হাত দিয়ে কী-ই বা করার ছিল। দূরে থাকো তোমরা।’

ভিএআরে আবারও আস্থা প্রকাশ করেছেন থোমাস টুখেল। তবে কিমপেম্বেকে লক্ষ্য করেই শটটা নেওয়া হয়েছিল কিনা প্রশ্ন রেখেছেন পিএসজি কোচ, ‘আমি ভিএআরের পক্ষে। কিন্তু মনে হচ্ছে শটটা লক্ষ্যে ছিল না এবং আর লক্ষ্যে যদি শট না নেওয়া হয় তাহলে সেটা পেনাল্টি নয়। পেনাল্টি নাকি পেনাল্টি না, সেটার ব্যাখ্যা করা প্রয়োজন। নিয়মটা অস্পষ্ট।’ গোল ডটকম, ইএসপিএনএফসি



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here