সাংবাদিকদের ভয় দেখাচ্ছে মোদি সরকার: মমতা

0


পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। ছবি: এনডিটিভি

রাফাল মামলার ঘটনায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় মোদি সরকার চরম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছে। এ নিয়ে বিজেপি সরকার সংবাদমাধ্যমকে ভয় দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

তিনি বলেন, রাফাল মামলার নথি হারিয়ে যাওয়ার ঘটনা খুবই গুরুতর বিষয়। এটির তদন্ত করে দেখা জরুরি। গণতন্ত্রের জন্য সংবাদ মাধ্যমের বিরাট ভূমিকা আছে। ভারতের অন্যতম প্রবীণ সম্পাদক এন রামকে যেভাবে ভয় দেখানো হচ্ছে আমি তার প্রতিবাদ করছি। সাংবাদিকদের ভয় দেখানো খুবই লজ্জার বিষয়।’

গোটা বিষয়টিকে তামাশা বলে ব্যাখ্যা করে টুইটারে হিন্দিতে মমতা লেখেন, ‘দেশে কী অবস্থা চলছে? প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মতো জায়গা থেকে তথ্য চুরি হয়ে যাচ্ছে! এটা দেশের জন্য খুব বিপজ্জনক সময়। এই চুরির পেছনে কে আছে? ছুপা রুস্তমকে সেটা জানতে তদন্ত হওয়া উচিত।’

তবে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে সেকথা বলেন তিনি।

সম্প্রতি দ্য হিন্দু পত্রিকায় রাফাল চুক্তি নিয়ে পরপর কয়েকটি খবর প্রকাশিত হয়। এ নিয়ে ভারতজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

দ্যা হিন্দুর বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়,রাফাল কেনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দফতর হস্তক্ষেপ করেছিল। অথচ কেন্দ্র সুপ্রিম কোর্টে আগেই জানিয়েছিল রাফাল চুক্তিতে মোদির দফতরের ভূমিকা ছিল না।

তবে সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয় প্রধানমন্ত্রী মোদির কার্যালয়ের হস্তক্ষেপ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তৎকালীন প্রতিরক্ষা সচিব। এই খবরকে কেন্দ্র করে মোদি সরকার সুপ্রিমকোর্টকে জানায়, রাফাল চুক্তির অনেক তথ্য চুরি হয়ে গিয়েছে। সরকারের দাবি এই সমস্ত নথিপত্র অন্যায়ভাবে হাতে নিয়ে আদলাতে মামলা করা হয়েছে। আদলাতে মোদী সকারের হয়ে শুনানি করেন এ জি কে কে বেনুগোপাল। তিনি এ প্রসঙ্গে মোদী সরকাররে মত ব্যক্ত করেন।



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here